শনিবার, ০১ অক্টোবর ২০২২, ০৯:৩৬ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম:
আইজিপি হিসেবে দায়িত্ব নিলেন চৌধুরী আবদুল্লাহ আল মামুন বিপিএম (বার), পিপিএম আধুনিক সংবাদ পত্রের অগ্রদূত সাতক্ষীরার কৃতি সন্তান তোয়াব খান আর সেই আজ একসঙ্গে শুটিংয়ে শাকিব-বুবলি জননেত্রী শেখ হাসিনা’র জন্মদিনে ১হাজার ৭৬টি গাছ রোপন করতে পেরে আমি ধন্য—-উপজেলা চেয়ারম্যান সাঈদ মেহেদী কালিগঞ্জে মটর সাইকেল চোর সিন্ডিকেটের ৩জনসহ ৪ মটর সাইকেল উদ্ধার করেছে পুলিশ কালিগঞ্জে শুভসংঘের কমিটি গঠন সেলিম সভাপতি ফরিদুল সম্পাদক কালিগঞ্জ উপজেলায় পূজা মন্ডপে নগদ অর্থ প্রদান করলেন এসএম জগলুল হায়দার এমপি আমার শৈশব,কৈশোর,তারুন্য যৌবনের প্রথম দিনগুলো।।মানুষের কল্যাণে প্রতিদিন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ.ক.ম মোজাম্মেল হকের আজ জন্মদিন রাঙ্গুনিয়াবাসীর দোয়া চাইলেন ড. হাছান মাহমুদ
নাচ,গান,অভিনয়ের মাধ্যমে আজ আমি সোহানা সাবা।।মানুষের কল্যাণে প্রতিদিন

নাচ,গান,অভিনয়ের মাধ্যমে আজ আমি সোহানা সাবা।।মানুষের কল্যাণে প্রতিদিন

চিত্রনায়িকা সোহানা সাবা’র ফেসবুক থেকে সরাসরি তুলে ধরা…..

আমি বিয়ে করবো !
এই ধারাবাহিকতায় অন্যরকম লেখা!

কদিন ধরে কিছু মানুষের লেখা পড়ছি ঘসেগুলো পড়ে নানান কিছু মাথার মধ্যে ঘুরপাক খাচ্ছে। আমার মনে হল ব্যাপারটা আমার যা মনে হয় সেটা সবাইকে বলা উচিত।কদিন ধরে সিনেমার কিছু হিরো-হিরোইন অথবা কিছু গায়ক – ভাইরাল হওয়া কিছু মানুষকে নিয়ে অনেক রকম সমালোচনা চলছে।যাদেরকে কিনা পচাতে গিয়ে আমরাই একসময় ভাইরাল করেছি। আমরা অর্থাৎ স্পেশালি শিল্পীরা ভাবতেই পারছি না আমরা কি করে তাদের গোত্রের।

এ ব্যাপারে আমার যা অভিমত আছে আমি আমার মত বলতে চাই। প্রথম কথা আমি কতটা শিল্পী হিসাবে উতরে পড়লাম সেটা কে বিবেচনা করছে? কে সার্টিফিকেট দিচ্ছে? জনগণ কি সত্যিই আমাকে পছন্দ করছে ? নাকি আমরা(অনেকেই) নিজের পিয়ার এবং সিন্ডিকেটের মাধ্যমে অনেক অযোগ্যতা নিয়েই কাজ করছি? তাহলে আমি কে ওদেরকে নিয়ে কথা বলার? অথবা আমি জনপ্রিয় কিন্তু শিল্পী হিসেবে কতটা ভালো? (আমি বলতে আমার আশেপাশের অনেকের কথা বলছি)**

আমি প্রথম ভাগ লিখেছিলাম প্রায় এক সপ্তাহ আগে ।
এই অযোগ্য মানুষেরা আজকে নিজেদেরকে শিল্পী হিসেবে গণ্য করে সমাজে কিছু হাস্যকর ভাইরাল হওয়া হিরো-হিরোইন অথবা সিঙ্গার কে তুচ্ছ তাচ্ছিল্য করে কথা বলছে।
এর মধ্যে একজন অযোগ্য মানুষ নিজের নামের আগে হিরো লাগিয়ে এতটাই ভাইরাল হয়েছে যে বিবিসি পর্যন্ত আমাদের বাংলাদেশের হিরো ইমেজের কি ভয়ঙ্কর ট্রেন্ড সেট করে দিয়েছে। তাকে ভাইরাল যেমন আমরা করেছি -তাকে নিয়ে হাসতে গিয়ে -তেমনি তাকে ধরে মুচলেকে নিয়ে -সেটা নিয়ে আবার দুঃখে গা ভাসিয়ে -আমরা আরেকটু তাকে ভাইরাল হতে সহায়তা করেছি এবং তার সাপোর্টে অযথা লেখালেখি করতে গিয়ে আরও বেশি নিজেদেরকে ছোট করেছি।
আমার কাছে মনে হয় শুধু এই দুই চার জনই নয় আরো অনেকেই অযোগ্য মানুষ আমাদের এই মিডিয়াতে অথবা শিল্প-সংস্কৃতিক গোত্রে, অনেক আগে থেকেই ঘোরাফেরা করছে এবং আমরাই তাদেরকে প্রশ্রয় দিয়ে আসছি।
এদের টাকা পয়সা অথবা অযোগ্যতা এত বেশি করে চোখে পড়ে না আমাদের। তাই তাদের “অযোগ্যতা” আমাদের গায়ে লাগে না।
যেমন ধরেন কোন একটা জায়গায় মাদকসহ কেউ ধরা পড়লেই নিউজের শুরুতেই আমরা ভেরিফাই না করেই তাকে হিরো হিরোইন মডেল গায়ক এসব বসিয়ে দিচ্ছি। তাতে নিউজটা চটকদার হচ্ছে কিন্তু আমরা বুঝে উঠতে পারছি না কদিন পরেই এই চটকদার নিউজটাই আমাদের জন্য কতটা ক্ষতির কারণ হয়ে যাবে। আমি বলছি না আমরা যারা সংস্কৃতিকর্মী তারা কোন ভুল করি না। তাদের অনেকেই ভুল করি কিন্তু এ ধরনের বাইরের মানুষ আমাদের লেবেল তাদের গায়ে লাগিয়ে যা খুশি তাই করে গিয়ে আমাদের গায়ে বদনামের কাদা লাগাতে পারে না।
আমার কাছে এটাও মনে হয় আমরা শিল্পীরা নিজেদেরকে সাধারণ মানুষ থেকে অনেক দূরের মানুষ করে ফেলছি দিনে দিনে। আমরা নিজেদেরকে সাধারণ মানুষদের দলের ব্রাহ্মণ মনে করছি। তাই হয়তো সাধারণ মানুষ থেকে আমাদের এতটাই দূরত্ব হচ্ছে যে তারা এখন খুব সহজেই নোংরামি করে হোক,ভাঁড়ামী করে হোক ভাইরাল হয়ে আমাদের সমগোত্রীয় হবার চেষ্টা করছে!

এতগুলো বছর নাচ গান অভিনয় আবৃত্তি শিখে অভিনয়ের মাধ্যমে অনেকের ভালোবাসা পেয়ে আজ আমি সোহানা সাবা হয়েছি ।

তাই নিজেকে সাংস্কৃতিক কর্মী হিসেবে অথবা শিল্পী হিসেবে দাবি করলাম। কাউকে ছোট করতে আমার কোন লেখা লিখিনি। ভুল করে থাকলে ক্ষমা করবেন ।

Print Friendly, PDF & Email

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

Comments are closed.




© All rights reserved © MKProtidin.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com