সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৪:১১ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
মুখস্থ বিদ্যায় পাওয়া মূল্যহীন ডিগ্রি। মহাপরিচালক এর প্রশংসা” ব্যাজে ভূষিত হলেন ৩০জন কর্মকর্তা ভালোবাসা ও ফুলেল শুভেচ্ছায় ভাসছেন উপসচিব আলমগীর সম্পর্কের নতুন অধ্যায় নিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সাথে মার্কিন প্রতিনিধি দলের বিস্তারিত আলোচনা মাতৃগর্ভে থাকা শিশুর লিঙ্গ পরিচয় প্রকাশ করা যাবে না : হাইকোর্ট ‘ভূমি জোনিং ও সুরক্ষা আইন, ২০২৪’-এর খসড়া মতামতের জন্য উন্মুক্ত/খাদ্য নিরাপত্তা, পরিবেশ সুরক্ষা এবং জলবায়ু পরিবর্তনের অভিঘাত মোকাবেলায় এই আইন ভূমিকা রাখবে যুব ও ক্রিড়া মন্ত্রী আলহাজ্ব নাজমুল হাসান পাপনকে নাগরিক সংবর্ধনা রাঙ্গামাটি জেলা পুলিশের বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মকান্ডের শুভ উদ্বোধন করেন পুলিশ সুপার মহোদয় অমর একুশের বই মেলায় শাবানা ইসলাম বন্যার অপূর্বা কালিগঞ্জে শ্রমিক ইউনিয়নের নির্বাচন সম্পন্ন সুমন সভাপতি, তাহের সম্পাদক

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে এরদোগান বিজয়ী

  • আপডেট টাইম : সোমবার, ২৫ জুন, ২০১৮, ১১.১৬ এএম
  • ৪০৪ বার পঠিত

তুরস্কে সাংবিধানিকভাবে শাসন কাঠামোতে পরিবর্তন আনার পর প্রথমবারের মতো একসঙ্গে অনুষ্ঠিত হলো প্রেসিডেন্ট ও পার্লামেন্টের নির্বাচনের ভোট গ্রহণ। সেই নির্বাচনে প্রেসিডেন্ট পদে সরাসরি বিজয়ী হয়েছেন বর্তমান প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান। বেসরকারি ফলাফলে দেখা যায়, এরদোগান ৫৩ শতাংশ ভোট পেয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মুহাররম ইনজে পেয়েছেন ৩১ শতাংশ ভোট।

এদিকে পার্লামেন্ট নির্বাচনেও এরদোগানের দল জাস্টিস এন্ড ডেভেলপমেন্ট (একে) পার্টির নেতৃত্বাধীন জোট সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেয়েছে। ৯৬ শতাংশ ভোট গণনা শেষে দেখা যায় জোটগতভাবে পার্লামেন্টে তারা ৫৫ শতাংশ ভোট পেয়েছে। পার্লামেন্ট নির্বাচনে জোটগতভাবে বিজয়ী হলেও পার্লামেন্টে একে পার্টির একাধিপত্যের অবসান হয়েছে। এখন পার্লামেন্টে সংখ্যাগরিষ্ঠতার ভিত্তিতে কোনও সিদ্ধান্ত নিতে তাদের জোট সঙ্গী এমএইচপির সমর্থন প্রয়োজন হবে। আর কোনও সাংবিধানিক পরিবর্তনের জন্য প্রয়োজনীয় সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেতে প্রধান বিরোধী জোট সিএইচপি অথবা কুর্দি সমর্থিত দল এইচডিপির সমর্থন প্রয়োজন হবে।
এককভাবে ৫০ শতাংশের বেশি ভোট না পেলে এরদোগানকে দ্বিতীয় দফায় ভোটে অবতীর্ণ হতে হতো। তখন ১৫ দিনের ব্যবধানে মুহররম এনজের সঙ্গে এককভাবে লড়াইয়ে নামতে হতো তাকে। এখন সরাসরি প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে বিজয়ী হওয়ায় তুরস্কের বিভিন্ন শহরে এরদোগানের সমর্থকরা আনন্দ মিছিল করছে। রাতে তারা আলো জালিয়ে নেচে গেয়ে বিজয় উদযাপন করছে।
তুরস্কে ক্ষমতাসীন রিসেপ তায়েপ এরদোগান বিপুলভাবে জনপ্রিয় হলেও এবারই তাকে সবচেয়ে শক্ত প্রতিদ্বন্দ্বিতার মুখে পড়তে হবে বলে বিশ্লেষকরা বলছিলেন। কারণ ইনজের সাম্প্রতিক জনসভাগুলোয় ব্যাপক লোকসমাগম হওয়ায় সেই ধারণা জোরদার হয়েছিল।
এরদোগান প্রেসিডেন্ট হিসেবে দ্বিতীয় মেয়াদের জন্য প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। তুরস্কের সংবিধানে তিনি যে পরিবর্তন এনেছেন তাতে প্রেসিডেন্টকে নতুন এবং ব্যাপক ক্ষমতা দেয়া হয়েছে। এরদোগান ২০১৪ সালে প্রেসিডেন্ট হবার আগে ১১ বছর প্রধানমন্ত্রী ছিলেন।
এর মধ্যেই একে পার্টির সরকার উৎখাতের প্রচেষ্টা হিসেবে ২০১৬ সালে তুরস্কে একটি ব্যর্থ সামরিক অভ্যুত্থান হয়। এরপর থেকেই দেশটিতে জরুরি অবস্থা চলছে। বিবিসি ও আল জাজিরা।

 

Print Friendly, PDF & Email

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর

পুরাতন খবর

SatSunMonTueWedThuFri
     12
242526272829 
       
     12
24252627282930
       
2930     
       
    123
       
    123
25262728   
       
     12
31      
   1234
262728    
       
  12345
2728     
       
   1234
       
     12
31      
1234567
891011121314
15161718192021
2930     
       
    123
11121314151617
       
  12345
20212223242526
27282930   
       
      1
2345678
23242526272829
3031     
      1
       
293031    
       
     12
10111213141516
       
  12345
       
2930     
       
    123
18192021222324
25262728293031
       
28293031   
       
      1
16171819202122
30      
   1234
       
14151617181920
282930    
       
     12
31      
     12
3456789
10111213141516
17181920212223
       
© All rights reserved © MKProtidin.Com
Theme Developed BY ThemesBazar.Com