বৃহস্পতিবার, ০২ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০১:৩৮ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম:
কালিগঞ্জে উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্যদিয়ে সরস্বতীপূজা সম্পন্ন হিরো আলম বগুড়া-৪ আসনে ৯৫১ ভোটের ব্যবধানে হেরেছেন অজ্ঞতা যখন চিৎকার করে ডিজিটাল যুগে ভাষা এবং সাহিত্য চর্চাও ডিজিটালাইজড করার পরামর্শ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকারি খানবাহাদুর আহ্ছানউল্লা কলেজে ১ম বর্ষের নবীনবরণ অনুষ্ঠিত” সরকারি খানবাহাদুর আহ্ছানউল্লা কলেজের ব্যবস্থাপনা বিভাগীয় প্রধানের বিদায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত” কালিগঞ্জ থানায় গ্রেফতারী পরোয়ানা ভূক্ত ০৮(আট) জন আসামী গ্রেফতার” নলতা হাসপাতালে ২ দিন ব্যাপি গাইনী ও প্রসূতি বিষয়ে ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প  ১ ফেব্রুয়ারি শেষ হবে” গলাচিপায় যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামি গ্রেফতার  সন্ত্রাস, অরাজকতা দমন ও শান্তি-শৃঙ্খলা রক্ষায় পুলিশ বাহীনি দায়িত্ব পালন করছে—-থানার ওসি মামুন রহমান
শেরপুরের নকলায় স্বামীর হাতে স্ত্রী খুন

শেরপুরের নকলায় স্বামীর হাতে স্ত্রী খুন

মোঃ শফিকুল ইসলাম।।

শেরপুরের নকলায় স্ত্রী শাহনাজ বেগম (৩৫) কে হত্যার অভিযোগ উঠেছে স্বামী রাসেল মিয়ার (৫০) বিরুদ্ধে। ৪ ডিসেম্বর রবিবার ভোরে উপজেলার চন্দ্রকোনা ইউনিয়নের জানকিপুর এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। নিহত শাহনাজ বেগম এই গ্রামের শাহজামালের মেয়ে ও ২ সন্তানের জননী। খবর পেয়ে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করেছে। এদিকে ঘটনার পর থেকেই পলাতক রয়েছে স্বামী রাসেল মিয়া।
জানা যায়, প্রায় ২০ বছর আগে শাহনাজের প্রথম বিয়ে হয় পার্শ্ববর্তী বাড়ির সুরুজ মিয়ার ছেলে মানিক মিয়ার সাথে। ১২ বছর আগে তাঁদের মধ্যে ছাড়াছাড়ি হয়ে যায়। সে সংসারে শাহনাজের ২টি সন্তান রয়েছে। পরবর্তীতে জীবিকার তাগিদে শাহনাজ গাজীপুরের ঘরঘরিয়া মাস্টারবাড়ি এলাকায় একটি পোশাক তৈরি কারখানায় কাজ নেয়। সেখানে পরিচয় হয় স্থানীয় মজিবর রহমানের ছেলে রাসেল খানের (৫০) সাথে। পরিচয়ের একপর্যায়ে তারা বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন। কিন্তু রাসেলের স্ত্রী-সন্তান থাকায় এ নিয়ে পারিবারিক অশান্তি বাড়তে থাকে। বছর তিনেক আগে শাহানাজ রাসেলকে নিয়ে বাবার বাড়িতে চলে আসে।
সেখানে আলাদা বাড়িতে থেকে দিনমজুরের কাজ করে চলতো তাদের সংসার। কিন্তু পারিবারিক অশান্তি তাদের পিছু ছাড়ছিলো না। প্রতিদিনের মতো শনিবার রাতে তাঁদের মধ্যে ঝগড়াঝাঁটি হয়। ঝগড়ার একপর্যায়ে রাসেল শাহনাজকে নির্মমভাবে হত্যা করে এবং বাহির থেকে ঘরের দরজায় তালা ঝুলিয়ে পালিয়ে যায়। রবিবার সকালে ঘরের বাইরে থেকে তালা দেওয়া দেখে পরিবারের অন্য সদস্যরা ডাকাডাকির এক পর্যায়ে কোন সাড়া না পেলে তালা ভেঙে ভেতরে গেলে শাহনাজের রক্তাক্ত লাশ মেঝেতে পড়ে থাকতে দেখে। পরে পুলিশে খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে শাহনাজের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন শেরপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মোহাম্মদ হান্নান মিয়াসহ পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।
এ ব্যাপারে শেরপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মোহাম্মদ হান্নান মিয়া জানান, ধারণা করা হচ্ছে, গতকাল রাতে তর্ক-বিতর্কের জের ধরে কোন একসময় শাহনাজকে হত্যা করে থাকতে পারে তার স্বামী। এই ঘটনায় নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় একটি হত্যা মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। শাহনাজের স্বামীকে গ্রেফতারে অভিযান শুরু করেছে পুলিশ। আশা করছি দ্রæতই তাকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হবো আমরা।খোঁজ নিয়ে জানাগেছে, শাহানাজ এর মা লাখি আক্তার বলেছেন রবিবার আজকে তার কিস্তি ছিলো উপজেলা দারিদ্র বিমোচন সমিতির সেই টাকা নিয়ে কথাকাটাকাটি করে শাহানাজকে হত্যা করে তার স্বামী।

Print Friendly, PDF & Email

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

Comments are closed.




© All rights reserved © MKProtidin.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com