বৃহস্পতিবার, ২৬ মে ২০২২, ০৩:৩৭ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম:
মঠবাড়িয়ার ধর্ষণে ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী অন্তঃসত্বা ॥ ধর্ষক গ্রেফতার কালিগঞ্জে আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে নেছারাবাদে “যোগাযোগ দক্ষতা উন্নয়ন বিষয়ক প্রশিক্ষণ” অনুষ্ঠিত ঝালকাঠিতে জেলা পুলিশের একাধিক অভিযানে আটক-২ ইয়াবা ও গাজা উদ্ধার বাংলাদেশের গর্বের, স্বপ্নের পদ্মা সেতু উদ্বোধন হতে যাচ্ছে আগামী ২৫ জুন ২০২২ তারিখে টাঙ্গাইলের মধুপুরে আইন শৃঙ্খলা কমিটির আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত র‌্যাব -৭, চট্টগ্রামের অভিযানে কক্সবাজার জেলার উখিয়া থেকে ১ লাখ ৭০ হাজার পিস ইয়াবাসহ ০৩ জন ইয়াবা ব্যবসায়ী আটক। সাংবাদিক জাহাঙ্গীর আলমের মৃত্যুতে বিএমএসএফ’র গভীর শোক ও সমবেদনা দিগন্ত ফাউন্ডেশনের সভাপতি ও সম্পাদক পুনরায় বহাল ৬৯ নং মধ্য যৌতা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় বন্ধ দেখে হতাশ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা।
চীন থেকে বাংলাদেশ ও মিয়ানমার হয়ে ভারতের কলকাতা পযর্ন্ত বুলেট ট্রেন সেবা চালু করতে আগ্রহী চীন

চীন থেকে বাংলাদেশ ও মিয়ানমার হয়ে ভারতের কলকাতা পযর্ন্ত বুলেট ট্রেন সেবা চালু করতে আগ্রহী চীন

চীন থেকে বাংলাদেশ ও মিয়ানমার হয়ে ভারতের কলকাতা পযর্ন্ত বুলেট ট্রেন সেবা চালু করতে আগ্রহী চীন। ভারত ও চীন যৌথভাবে উদ্যোগ নিলে উচ্চগতিসম্পন্ন এই ট্রেন সংযোগ স্থাপন করা সম্ভব হবে।

এনডিটিভির খবরে বলা হয়েছে, চীনের কুনমিং থেকে বাংলাদেশ ও মিয়ানমার হয়ে ভারতের কলকাতা পযর্ন্ত বুলেট ট্রেন সেবা চালু করতে আগ্রহের কথা জানিয়েছে চীন। বুধবার এক সম্মেলনে এ আগ্রহের কথা জানান কলকাতায় চীনের কনসাল জেনারেল মা ঝানু। তিনি বলেন, ভারত ও চীন যৌথভাবে উদ্যোগ নিলে কুনমিং ও কলকাতার মধ্যে উচ্চগতির ট্রেন সংযোগ স্থাপন করা সম্ভব।

মা ঝানু বলেন, বুলেট ট্রেন প্রকল্প যদি বাস্তবে রূপ দেয়া সম্ভব হয়ে যায়, তবে কলকাতা থেকে কুনমিংয়ে যেতে সময় লাগবে মাত্র কয়েক ঘণ্টা। বাংলাদেশ ও মিয়ানমারও এ প্রকল্প থেকে লাভবান হবে বলে অভিমত ঝানুর। তিনি বলেন, এই পথ ধরে নানা ধরনের শিল্প গড়ে উঠতে পারে। ফলে ২ হাজার ৮০০ কিলোমিটার দীঘর্ এ প্রকল্পে জড়িত দেশগুলোর অথৈর্নতিক উন্নয়নের সম্ভাবনাও বৃদ্ধি পাবে। ২০১৫ সালে বৃহত্তর মেকং উপ-অঞ্চল সম্মেলনেও এই বুলেট ট্রেন প্রকল্পের প্রসঙ্গ নিয়ে আলোচনা হয়েছে বলে জানান তিনি।

মা ঝানু আরও বলেন, বাংলাদেশ, চীন, ভারত ও মিয়ানমারের মধ্যে বাণিজ্য বৃদ্ধিই এ প্রকল্পের উদ্দেশ্য। প্রাচীন আমলের সিল্ক রোড পুনরুজ্জীবিত করে কুনমিং থেকে কলকাতার মধ্যে সংযোগ বৃদ্ধি করতে চায় চীন। মা ঝানু আরও বলেন, চীন এ অঞ্চলে অংশীদারিত্বের ভিত্তিতে উন্নয়ন প্রয়াস চালিয়ে যেতে চায়।

Print Friendly, PDF & Email

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

Comments are closed.




© All rights reserved © MKProtidin.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com