শুক্রবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২১, ০৭:১৮ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম:
ভোমরা সিএ্যান্ডএফ আহবায়ক কমিটি মত বিনিময় ভোমরা হবে পূর্নাঙ্গ স্থলবন্দর, সাতক্ষীরায় অর্থনৈতিক জোন রাজশাহীর কাঁটাখালীতে আব্বাসের বিরুদ্ধে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভা নড়াইলের ইতনা ইউপি চেয়ারম্যান প্রার্থীকে  পিটিয়ে ও কুপিয়ে আহত  রাজশাহীর গোদাগাড়ীতে বাসের চাপায় বাবা ছেলে নিহত সন্তান প্রাপ্ত বয়স্ক না হওয়া পর্যন্ত, পিতার দায়িত্ব তার ভরণপোষণের, জানাল সুপ্রিম কোর্ট বাহরাইনে HSC ও সমমানের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত দিদির পাড়ায় দুই দাদার লড়াই জমে উঠেছে কলকাতা পৌরসভার নির্বাচন টুঙ্গিপাড়ায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য খায়রুজ্জামান লিটনের শ্রদ্ধা নিবেদন সোনারগাঁয়ে ৩০০ বোতল ফেন্সিডিলসহ ০২ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার, পিকআপ জব্দ বিএমএসএফ হবে প্রকৃতই সাংবাদিকবান্ধব সংগঠনে –কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ
শারীরিক প্রতিবন্ধী হয়েও জীবন যুদ্ধে সফল আহমেদ আলী।।মানুষের কল্যাণে প্রতিদিন

শারীরিক প্রতিবন্ধী হয়েও জীবন যুদ্ধে সফল আহমেদ আলী।।মানুষের কল্যাণে প্রতিদিন

 

ইউসুফ আলী খানঃরংপুর জেলার বদরগঞ্জ থানার মধুপুর দলপাড়া গ্রামের মোঃ আহমেদ আলী, জম্মগত ভাবে শারীরিক প্রতিবন্ধী হয়েও জীবনযুদ্ধে সফল তিনি।

কথায় আছে ইচ্ছা শক্তি থাকলে যে কোন অসাধ্যও সাধন করার যায়। যার জলন্ত উদাহরণ আহমেদ আলী।জম্মগত ভাবে শারীরিক প্রতিবন্ধী হয়েও অটোরিকশার মেকার হয়ে সংসারের স্বচ্ছলতা ফিরিয়ে আনার পাশাপাশি নিজের লেখাপড়া চালিয়ে যাচ্ছেন। সংসারের সবার মুখে হাসি ফটিয়েছেন। স্বপ্ন দেখছেন উচ্চ শিক্ষায় শিক্ষিত হয়ে ভালো একটি চাকরি করবেন।

রংপুর জেলার বদরগঞ্জ থানার মধুপুর দলপাড়া গ্রামের দিনমজুর মোঃ আবুল হাসেম ও গৃহিণী আছিয়া বেগম এর বড় ছেলে মোঃ আহমেদ আলী। দুই ভাই বোনের মধ্যে বড় আহমেদ আলী।

অভাবী সংসারের দুঃখ-কষ্টের মাঝে দিনমজুর পিতা শারীরিক প্রতিবন্ধী ছেলের ইচ্ছে পুরন করার জন্য পড়াশোনা চালিয়ে যাচ্ছেন।
তিনি ২০১৩ সালে মধুপুর কাজীর হাট দ্বিমুখী উচ্চবিদ্যালয় থেকে জিপিএ ৩.৩৮ পেয়ে এসএসসি পাশ করে,বদরগঞ্জ ডিগ্রি কলেজে ভর্তি হন এবং ২০১৫ সালের এইচএসসি পরীক্ষায় জিপিএ ৩.৩০ নিয়ে পাশ করে। পরবর্তীতে তিনি উচ্চ শিক্ষার জন্য অনার্সে ভর্তি হন। বর্তমানে তিনি সাভার বিশ্ববিদ্যালয়ে ইকোনমিকসে অনার্সের ৩য় বর্ষের ছাত্র। থাকেন বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে বিল্ডিং এর সিড়ির নিচে।বর্তমানে মহামারী করোনা ভাইরাস সংক্রমণের কারণে বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ থাকায় তিনি সাভার পৌর এলাকার তালবাগে মাসিক তিন হাজার টাকায় বাসা ভাড়া নিয়ে থাকেন।

এসময় আহমেদ আলীর সাথে কথা বলে জানা যায় যে, তিনি শারীরিক প্রতিবন্ধী হয়েও বসে নেই। পড়াশোনার পাশাপাশি তিনি একটি রিকশা গ্যারেজে কাজ করেন এবং তার পড়াশোনা করার জন্য সাভার উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও সাভার উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মঞ্জরুল আলম রাজীব প্রতিমাসে আর্থিক সহযোগিতা করে থাকেন। তিনি আরও বলেন আমি মানুষের কাছে ভিক্ষা না চেয়ে নিজে পরিশ্রম করে কাজ করে যা উপার্জন করি এবং রাজীব স্যার আমাকে প্রতিমাসে যে আর্থিক সহযোগিতা করেন তাতে করে আমার পড়াশোনা ও সংসার খরচ করেও বাড়ীতে অসহায় মা বাবাকে সহযোগিতা করতে পারি। তার স্বপ্ন অনার্স পাশ করে সরকারি বা বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে চাকরি করে মা বাবার কষ্ট দুর করা এবং ছোট বোনটিকে একটি সুন্দর ভবিষ্যৎ উপহার দেওয়া।

এ ব্যাপারে সাভার উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও সাভার উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মঞ্জরুল আলম রাজীব বলেন, সমাজে প্রতিবন্ধীরা যে বোঝা নয় আহমেদ আলী তার জ্বলন্ত উদাহরণ। সে জন্মগতভাবে শারীরিক প্রতিবন্ধী। তার দুইটি পা -ই পঙ্গু এবং শারীরের অন্যান্য অঙ্গ পতঙ্গ গুলোও স্বাভাবিক নয়। সে একজন মেধাবী ছাত্র। সে কঠোর পরিশ্রম করে সাভার বিশ্ববিদ্যালয়ে অনার্স ৩য় বর্ষে পড়ালেখা করে এবং একটি রিকশা গ্যারেজে কাজ করে। পড়াশোনার পাশাপাশি সে সংসারের দুঃখ-কষ্ট দূর করে পরিবারের সদস্যদের মুখে হাসি ফুটিয়েছে। আমি তাকে মাসিক প্রতিবন্ধী ভাতা দিয়ে আসছি এবং আমার ব্যক্তিগত ভাবে যখন যা দরকার তা দিয়ে সহযোগিতা করে আসছি। পরবর্তীতে তার যে কোন সাহায্য সহযোগিতায় আমি তার পাশে থেকে সহযোগিতা করে যাবো।

Print Friendly, PDF & Email

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

Comments are closed.




© All rights reserved © MKProtidin.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com