বৃহস্পতিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৬:৩৯ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম:
প্রেস বিজ্ঞপ্তি ভারত থেকে নেপালের রাষ্ট্রদূত শ্রী নীলাম্বর আচার্য কে ফিরতে নির্দেশ, অবনতি হতে পারে ভারতের সাথে নেপালের কূটনৈতিক সম্পর্ক আশাশুনি প্রেসক্লাবের নির্বাচন সম্পন্ন আহসান সভাপতি, হাসান সম্পাদক সাংবাদিকতায় ফ্রি লিডারশীপ ট্টেনিং দেবে বিএমএসএফ বড়াইগ্রামের ইউএনও’কে বনপাড়া পৌর পরিষদের বিদায় সংবর্ধনা। সোনারগাঁয়ের কাঁচপুরে সিনহা ওপেক্স গার্মেন্টসের শ্রমিকরা বকেয়া বেতনের দাবিতে সড়ক অবরোধ। আমি তো জানি সে আমার কে? বেওয়ারিশ! ভারতের জম্মু ও কাশ্মীর একটি জলন্ত সমস্যা আন্তর্জাতিক ভাবে এর সমাধান হওয়া উচিত, বললেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ এরদোগান রাজশাহীতে দুইলেনের ফ্লাইওভার নির্মাণ কাজের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন
স্কুল খুলে দেওয়ায় আনন্দিত খেদারমার উচ্চ বিদ্যালয় শিক্ষার্থীরা

স্কুল খুলে দেওয়ায় আনন্দিত খেদারমার উচ্চ বিদ্যালয় শিক্ষার্থীরা

 মোঃ জহির হাসান ঃ সারাদেশের ন্যায় বাঘাইছড়ির উপজেলার সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান চালু করা হয়েছে। অভিভাবকদের মাঝেও স্বস্তি ফিরে এসেছে। প্রায় ১ বছর ৭ মাস পরে আজসদ্দএএএ (রবিবার) খুলে দেয়া হল উপজেলার সকল ধরণের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। কোভিড-১৯ (করোনা ভাইরাস) মহামারী আকার ধারণ করায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গুলো বন্ধের ঘোষণা দেয়া হয়। ধাপে ধাপে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গুলো খোলার তারিখ ঠিক করলেও সংক্রমণের উর্ধ্বগতি থাকার ফলে আর খোলা হয়নি।
স্কুল, কলেজ ও মাদ্রাসা চালু হওয়ায় শিক্ষার্থীদের মুখে হাসি ফুটেছে এবং দেখা দিয়েছে প্রাণচঞ্চল্যতা সাথে অভিভাবকদের মাঝেও স্বস্তি ফিরে এসেছে ৷ দীর্ঘদিন পর ঘর মুখি শিক্ষার্থীরা ক্লাসে ফেরায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গুলোতে যেন উৎসবে মুখরিত।
সরেজমিনে বাঘাইছড়ি  উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ঘুরে দেখা যায়, শিক্ষক ও কর্মচারীরা শিক্ষার্থীদের ফুল দিয়ে বরণ করে নিয়েছে। শিক্ষার্থীরা স্কুল গুলোতে স্বাস্থ্য বিধি মেনে প্রবেশ করছে, প্রাণোচ্ছল রুপ ফিরে পেয়েছে শিক্ষাঙ্গন।
খেদারমারা উচ্চ বিদ্যালয়ের ১০ম শ্রেণির ছাত্রী মাহিয়া বলে ক্লাসে ফিরে কি আনন্দ লাগছে। দীর্ঘ দিন পর যেন সব কিছু অপরিচিত লাগছে। আমি এখন নিয়মিত বিদ্যালয়ে আসতে পারব।
অভিভাবক মোহাম্মদ আলী, মনির হোসেন মঈন, জসিম উদ্দিন বলেন, স্বল্প পরিসরে হলেও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলায় সংশ্লিষ্ট সকলকে ধন্যবাদ জানান।
তারা আরোও বলেন, টানা বন্দের কারনে ছেলে মেয়েদের লেখাপড়ায় অনেক ক্ষতি হয়েছে। ক্ষতি পুরণ করতে হলে শিক্ষকদেরকে গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা পালন করতে হবে। শিক্ষার্থীদেরকে পরীক্ষার জন্য মানসিক ভাবে প্রস্তুত করে তুলতে হবে।
উপজেলার খেদারমারা উচ্চ বিদ্যালয়ের  ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক জ্যতি বিকাশ চাকমা বলেন, শিক্ষার্থী ছাড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গুলো যেন বিরাণ ভুমিতে পরিণত হয়েছিল। আজ হতে পাঠদান কার্যক্রম শুরু হওয়ায় এখন শিক্ষার্থীদের পদচারণায় মুখরিত হয়ে উঠেছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। করোনা পরিস্থিতিতে শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্য সুরক্ষায় সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী সব রকম ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়য়েছে
Print Friendly, PDF & Email

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

Comments are closed.




© All rights reserved © MKProtidin.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com