শুক্রবার, ২৭ মে ২০২২, ০১:৪৮ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম:
মুন্সীগঞ্জের গজারিয়ায় বিট পুলিশিং এর সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে মিথ্যা মামলার প্রতিবাদে ঈশ্বরদীতে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ দিনাজপুরের বীরগঞ্জে বজ্রপাতে নিহত ১ পাঁচবিবিতে ডিবি পুলিশ কর্তৃক ০১(এক)কেজি ৫০(পঞ্চাশ)গ্রাম শুকনা গাঁজাসহ দুইজন মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার নড়াইলের কয়েক হাজার মানুষ ঝুঁকি নিয়ে চলাচল বাঁশের সাঁকোই তাদের ভরসা!! মুন্সীগঞ্জ‌ে টঙ্গীবাড়ীর আন্তঃ ইউনিয়ন প্রাথমিক বিদ্যালয় ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা-২০২২ মঠবাড়িয়ার ধর্ষণে ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী অন্তঃসত্বা ॥ ধর্ষক গ্রেফতার কালিগঞ্জে আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে নেছারাবাদে “যোগাযোগ দক্ষতা উন্নয়ন বিষয়ক প্রশিক্ষণ” অনুষ্ঠিত ঝালকাঠিতে জেলা পুলিশের একাধিক অভিযানে আটক-২ ইয়াবা ও গাজা উদ্ধার
গলাচিপায় গৃহবধূকে নির্যাতন করে হত্যা শ্বাশুরি দেবর ননদসহ গ্রফতার ৩

গলাচিপায় গৃহবধূকে নির্যাতন করে হত্যা শ্বাশুরি দেবর ননদসহ গ্রফতার ৩

গলাচিপা  (পটুয়াখালী) প্রতিনিধিঃ
গলাচিপায় বিয়ের তিন মাসের মধ্যেই গৃহবধূ রুমানা আক্তার (১৯) কে নির্মমভাবে নির্যাতন করে হত্যা করা হয়েছে। হত্যার পর ওই গৃহবধূর লাশ হাসপাতালে রেখে স্বামী ও তার স্বজনরা পালিয়ে যায়। পুলিশ খবর পেয়ে গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় গলাচিপা উপজেলার ডাকুয়া ইউনিয়নের চত্রা গ্রামে। অপরদিকে এ ঘটনায় রুমানার মা মোসা. সাজেদা বেগম বাদী হয়ে রুমানার স্বামী বেল্লাল হাওলাদার, শ্বশুর মো.শহিদুল হাওলাদার, দেবর মো. টিপু, ফেরদাউস, শাশুরি মোসা.ঝরর্না বেগম ও ননদ কে আসামী করে গলাচিপা থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। এ ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে গৃহবধূ রুমানার শ্বাশুরি ঝরনা বেগম, দেবর টিপু ফরদাউস ও ননদ সীমা বেগমকে পুলিশ বুধবার রাতেই ডাকুয়ার বিভিন্ন এলাকা থেকে গ্রেফতার করে আদালতে প্রেরণ করেন। এ ঘটনা সম্পর্কে বুধবার বেলা ১টায় থানায় প্রেস ব্রিফিং করেন গলাচিপা থানার অফিসার ইনচার্য এম আর শওকত আনোয়ার ইসলাম।
পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, গত তিন মাস আগে গলাচিপা উপজেলার ডাকুয়া ইউনিয়নের চত্রা গ্রামের শহিদুল হাওলাদারের ছেলে বেল্লাল হাওলাদারের (২৮) সাথে দশমিনা উপজেলার পশ্চিম আলীপুরার ৪ নম্বর ওয়ার্ডের বাবুল হাওলাদারের মেয়ে রুমানা বগম (১৯) এর বিয়ে হয়। প্রথম দুজনের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক থাকলেও পরে পারিবারিকভাবে তাদের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে গৃহবধূ রুমানার সাথে তার স্বামী ও স্বামীর পরিবারের লোকজন খারাপ আচরণ  শুরু করে। সংসারের বিভিন্ন ঘটনা নিয়ে রুমানার স্বামী, শ্বশুর, শাশুড়ি, দেবর ও ননদ বহুবার তাকে মারধর  করে। ঘটনার দিন সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টার দিকে রুমানার স্বামী বেল্লাল আমাকে মোবাইল ফোনে বলেন, রুমানা অসুস্হ হওয়ায় তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাচ্ছি।। খবর পেয়ে রুমানার বাবা মাসহ স্বজনরা গলাচিপা হাসপাতালে এসে দেখে রুমানার লাশ পড়ে আছে। তার স্বামীর বাড়ির কোন লাকজন নেই। পরবর্তীতে রুমানার মা জানতে পারেন বিকেলে সাড় পাঁচটা থেকে সন্ধ্যা ছয়টার মধ্যে যে কোন সময় রুমানাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে।
Print Friendly, PDF & Email

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

Comments are closed.




© All rights reserved © MKProtidin.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com