বৃহস্পতিবার, ২৬ মে ২০২২, ০৪:০৮ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম:
মঠবাড়িয়ার ধর্ষণে ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী অন্তঃসত্বা ॥ ধর্ষক গ্রেফতার কালিগঞ্জে আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে নেছারাবাদে “যোগাযোগ দক্ষতা উন্নয়ন বিষয়ক প্রশিক্ষণ” অনুষ্ঠিত ঝালকাঠিতে জেলা পুলিশের একাধিক অভিযানে আটক-২ ইয়াবা ও গাজা উদ্ধার বাংলাদেশের গর্বের, স্বপ্নের পদ্মা সেতু উদ্বোধন হতে যাচ্ছে আগামী ২৫ জুন ২০২২ তারিখে টাঙ্গাইলের মধুপুরে আইন শৃঙ্খলা কমিটির আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত র‌্যাব -৭, চট্টগ্রামের অভিযানে কক্সবাজার জেলার উখিয়া থেকে ১ লাখ ৭০ হাজার পিস ইয়াবাসহ ০৩ জন ইয়াবা ব্যবসায়ী আটক। সাংবাদিক জাহাঙ্গীর আলমের মৃত্যুতে বিএমএসএফ’র গভীর শোক ও সমবেদনা দিগন্ত ফাউন্ডেশনের সভাপতি ও সম্পাদক পুনরায় বহাল ৬৯ নং মধ্য যৌতা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় বন্ধ দেখে হতাশ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা।
তারেক রহমানকে দেশে ফিরিয়ে আনা হবে : প্রধানমন্ত্রী

তারেক রহমানকে দেশে ফিরিয়ে আনা হবে : প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান ও দন্ডিত ব্যক্তি তারেক রহমানকে যুক্তরাজ্য থেকে বাংলাদেশে ফিরিয়ে এনে আদালতের মুখোমুখি করার অঙ্গীকার করেছেন।

মঙ্গলবার বিকেলে এখানে ওভারসিজ ডেভেলপমেন্ট ইনস্টিটিউটে (ওডিআই) ‘বাংলাদেশের উন্নয়ন গল্প : নীতি, অগ্রগতি ও সম্ভাবনা’ শীর্ষক অনুষ্ঠানে মূল বক্তা হিসেবে ভাষণ দেয়ার পর প্রশ্নোত্তর পর্বে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘এ ব্যাপারে আমরা যুক্তরাজ্য সরকারের সঙ্গে কথা বলছি এবং অবশ্যই একদিন আমরা তাকে দেশে ফিরিয়ে আনবো। তাকে বিচারের মুখোমুখি হতে হবে।

তারেক রহমানের মতো একজন দণ্ডিত ব্যক্তিকে আশ্রয় দেয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রী যুক্তরাজ্য সরকারেরও সমালোচনা করেন। তিনি বলেন, ‘যুক্তরাজ্য একটি অবাধ স্বাধীনতার দেশ এবং এটি সত্যি যে, যে কোন ব্যক্তি এখানে আশ্রয় নিতে এবং শরণার্থী হতে পারে। তবে তারেক রহমান অপরাধের কারণে আদালত কর্তৃক একজন দণ্ডিত ব্যক্তি। আমি বুঝতে পারি না, একজন দন্ডিত ব্যক্তিকে কিভাবে যুক্তরাজ্য আশ্রয় দিয়েছে।’

রোহিঙ্গা ইস্যু প্রসঙ্গে শেখ হাসিনা বলেন, তাদের প্রত্যাবাসনে বাংলাদেশ মিয়ানমারের সঙ্গে একটি চুক্তি স্বাক্ষর করেছে। তিনি বলেন, প্রতিবেশী দেশ হিসেবে বাংলাদেশ মিয়ানমারের প্রতি বন্ধুত্বপূর্ণ আচরণ দেখিয়ে আসছে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ ও মিয়ানমারের মন্ত্রীরা উভয় দেশ সফর করেছেন। সংকটের সমাধান খুঁজে বের করতে আমাদের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মিয়ানমারের সকল প্রতিবেশী দেশের সঙ্গে আলোচনা করেছেন।

তিনি বলেন, মিয়ানমার রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে আগ্রহ দেখালেও বাস্তবে তারা কিছুই করেনি। তাই আমরা চাচ্ছি আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় এ ব্যাপারে মিয়ানমারের ওপর আরো চাপ সৃষ্টি করুক। বাসস।

 

Print Friendly, PDF & Email

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

Comments are closed.




© All rights reserved © MKProtidin.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com