বৃহস্পতিবার, ১১ অগাস্ট ২০২২, ০৫:১৭ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম:
পিরোজপুর আলামকাঠি গুলজার জামে মসজিদের জায়গা জবরদখলের অভিযোগে মসজিদ কমিটির সংবাদ সন্মেলন কালিগঞ্জের কালিন্দী নদীতে চিংড়ির রেণু ধরতে গিয়ে জেলে নিখোঁজ দোহারে ১৫ দিন থেকে মসজিদের মুয়াজ্জিন নিখোঁজ,পাগল প্রায় বাবা মা পিরোজপুরে হুমকি ও মিথ্যা মামলা দেয়ার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন ওসির ৮তলা বাড়ি নিয়ে ব্যারিস্টার সুমনের রিটে কড়া মন্তব্য করেছেন হাইকোর্ট কাজী আলাউদ্দীন ডিগ্রী কলেজে সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত নড়াইলে এসএম সুলতানের জন্মবার্ষিকী পালিত নাচ,গান,অভিনয়ের মাধ্যমে আজ আমি সোহানা সাবা।।মানুষের কল্যাণে প্রতিদিন কালিগঞ্জ থানায় ০৩(তিন) জন আসামী গ্রেফতার। কালিগঞ্জের কারবালা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের চারতলা ভবনের বেজঢালাইয়ের উদ্বোধন
যারা গরুর মাংস খায় তাদের ডি এন এ আলাদা হওয়ার দরকার।।মানুষের কল্যাণে প্রতিদিন

যারা গরুর মাংস খায় তাদের ডি এন এ আলাদা হওয়ার দরকার।।মানুষের কল্যাণে প্রতিদিন

যারা গো গোস খায় তাদের Dna আলাদা, এমন অভিযোগ তুললেন বি জে পি সংসদ সদস্য সাধ্বী মহারাজ। আজ ভারতের রাজস্থান এর দৌসায় একটি বিজেপির জনসভায় ভাষন দিতে গিয়ে বিজেপি সংসদ সদস্যা শ্রী মতি সাধ্বী মহারাজ বলেন যে, সারা ভারতের যে ভাবে জনসংখ্যার হার বেড়ে চলেছে তার নিয়ন্ত্রণ দরকার হয়ে পড়েছে। তাই নয় এন ডি এ পরিক্ষার মাধ্যমে এন ডি এ পরিক্ষা করে জন্মনিরোধক করার উপায় বের করা উচিত। এটি নিয়ে আগামী দিনে সংসদে একটি বিল আনা হবে। তার দাবি কি হিন্দু, কি মুসলিম সকল কে মানতে হবে জন্মনিরোধক ব্যবস্তা। এবার থেকে একটি পরিবারের দুই টি বেশি সন্তানের বেশি নিতে পারবেন না। এর ভিক্তর নিরভর করে জনসংখ্যা বৃদ্ধির হার কমাতে সাহায্য করবে। তার দাবি দিনের পর দিন ভারতের বিভিন্ন রাজ্যের মুসলিম জনসংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে। তা নিয়ন্ত্রণ করা দরকার। নতুবা একদিন সবকে ছাপিয়ে যাবে মুসলিম জনসংখ্যা। তিনি বলেন মুসলিম জনসংখ্যা এন ডি এ সম্পূর্ণ আলাদা। কারণ তারা গো মাতার গোস খায়। তাদের এন ডি এ সঙ্গে হিন্দু ভাইদের এন ডি এ এক হতে পারে না। তিনি এই বিষয়ে রাজস্থান রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী শ্রী অশোক গৌলত কে সতর্ক করে দেন। তিনি যেন তার রাজ্যের জনসংখ্যার নিয়ন্ত্রণ রাখেন। কিছু দিন আগে একটি মুসলিম জাগরণ মঞ্চ থেকে ভারতের বিশ্ব হিন্দু পরিষদ সভাপতি শ্রী মোহন ভগৎ বলেছিলেন যে ভারতের মুসলিম ভাইদের বাদ দিয়ে ভারত ভাবা যায় না। তিনি বলেন যে মুসলিম ভাইরা গরুর মাংস খায় সেটা তাদের খাদ্য। কিন্তু হিন্দু সনাতন ধর্ম এ গরু কে পূজা করে। ভারতের হিন্দু ও মুসলিম ভাই ভাই এদের মধ্যে সম্পর্ক কিছু রাজনৈতিক দল খারাপ করে দিচ্ছেন। এটা বাঞ্চনীয় নয়। কিন্তু আজ ভারতের রাজস্থান এর ধৌউসা তে সম্পূর্ণ উল্টো পথে হাটলেন সন্ঘপরিচালক সদস্যা ও বিজেপি নেত্রী ও বিজেপি সংসদ সদস্যা শ্রীমতী সাধ্বী মহারাজ। তার এই বক্তব্য নিয়ে পাল্টা আক্রমণ করেন রাজস্থান রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী ও ভারতের জাতীয় কংগ্রেস নেতা শ্রী অশোক গৌলত। তিনি বলেন তার রাজ্যের মধ্যে এমন আইন আনবেন না। রাজস্থান রাজ্যের হিন্দু ও মুসলিম ভাই বোনরা পাশাপাশি থাকবেন। এখানে সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা ও শক্তি কে মাথা চাড়া দিতে দেবেন না।। ভারত থেকে নিউজ দাতা মনোয়ার ইমাম।

Print Friendly, PDF & Email

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

Comments are closed.




© All rights reserved © MKProtidin.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com