শুক্রবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২১, ০৭:০১ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম:
ভোমরা সিএ্যান্ডএফ আহবায়ক কমিটি মত বিনিময় ভোমরা হবে পূর্নাঙ্গ স্থলবন্দর, সাতক্ষীরায় অর্থনৈতিক জোন রাজশাহীর কাঁটাখালীতে আব্বাসের বিরুদ্ধে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভা নড়াইলের ইতনা ইউপি চেয়ারম্যান প্রার্থীকে  পিটিয়ে ও কুপিয়ে আহত  রাজশাহীর গোদাগাড়ীতে বাসের চাপায় বাবা ছেলে নিহত সন্তান প্রাপ্ত বয়স্ক না হওয়া পর্যন্ত, পিতার দায়িত্ব তার ভরণপোষণের, জানাল সুপ্রিম কোর্ট বাহরাইনে HSC ও সমমানের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত দিদির পাড়ায় দুই দাদার লড়াই জমে উঠেছে কলকাতা পৌরসভার নির্বাচন টুঙ্গিপাড়ায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য খায়রুজ্জামান লিটনের শ্রদ্ধা নিবেদন সোনারগাঁয়ে ৩০০ বোতল ফেন্সিডিলসহ ০২ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার, পিকআপ জব্দ বিএমএসএফ হবে প্রকৃতই সাংবাদিকবান্ধব সংগঠনে –কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ
সাতক্ষীরায় জলাবদ্ধতা দূরীকরনে নাগরিক কমিটির ১৩ দফা দাবিতে জেলা প্রশাসকের সাথে মতবিনিময়

সাতক্ষীরায় জলাবদ্ধতা দূরীকরনে নাগরিক কমিটির ১৩ দফা দাবিতে জেলা প্রশাসকের সাথে মতবিনিময়

 

 

আরিফুল ইসলাম আশা:পলি পড়ে মজে যাওয়া নদী বেতনা ও মরিচ্চাপের পানি ধারন ক্ষমতা না থাকায় সাতক্ষীরায় জলাবদ্ধতা বিস্তার লাভ করছে। একইসাথে অতিবৃষ্টির কারনে এই জলাবদ্ধতা ভয়াবহ রূপ নিয়েছে। জলাবদ্ধতার কারনে ক্ষেতের ফসল নষ্ট হচ্ছে, রাস্তাঘাট অবকাঠামো অকেজো হয়ে পড়ছে। সাতক্ষীরা শহর ছাড়াও এর আশপাশের বিস্তীর্ন এলাকাজুড়ে জলাবদ্ধতা এখন এক অভিশাপ হয়ে দাড়িয়েছে।
রোববার সাতক্ষীরা জেলা নাগরিক কমিটি সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসকের সাথে এক মতবিনিময় সভায় একথা তুলে ধরে বলেন, অবিলম্বে পানি সরানোর ব্যবস্থা না করা হলে সাতক্ষীরার জনজীবন এবং আর্থসামাজিক অবস্থা বিপন্ন হয়ে পড়বে। জেলা প্রশাসক নাগরিক কমিটির প্রতিনিধিদের সাথে মতবিনিময়কালে বলেন, এ বিষয়ে তিনি সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়েছেন। পানি উন্নয়ন বোর্ডের সঙ্গে কথা বলে পানি নিষ্কাশনের দ্রুত ব্যবস্থা করবেন বলে আশ^াস দিয়েছেন। জেলা প্রশাসক মোঃ হুমায়ুন কবির আরও বলেন, অপরিকল্পিতভাবে পৌরসভার মধ্যে বাড়িঘর তৈরী এবং পানি নিষ্কাশনের কোন ড্রেনেজ ব্যবস্থা না থাকায় জলাবদ্ধতার সংকট বেড়েছে। জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে মতবিনিময়কালে উপস্থিত ছিলেন জেলা নাগরিক কমিটির আহবায়ক অধ্যক্ষ আনিসুর রহিম, সদস্য সচিব আবুল কালাম আজাদ, অধ্যক্ষ আব্দুল হামিদ, মাধব চন্দ্র দত্ত, অধ্যক্ষ আশেক ই এলাহী, আলী নূর খান বাবুল, এ্যাড. আজাদ হোসেন বেলাল প্রমুখ।
তারা ইছামতির সাথে মরিচ্চাপ নদীর সংযোগ স্থাপন, লাবন্যবতী, সাপমারা ও শাখরা সহ কয়েকটি স্লুইসগেট সচল করা, বেতনা নদীর সাথে সাতক্ষীরার প্রানসায়ের খালের সংযোগ স্থাপন সহ ১৩ দফা দাবি তুলে ধরেন। ——–

Print Friendly, PDF & Email

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

Comments are closed.




© All rights reserved © MKProtidin.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com