বৃহস্পতিবার, ২৬ মে ২০২২, ০৪:০১ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম:
মঠবাড়িয়ার ধর্ষণে ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী অন্তঃসত্বা ॥ ধর্ষক গ্রেফতার কালিগঞ্জে আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে নেছারাবাদে “যোগাযোগ দক্ষতা উন্নয়ন বিষয়ক প্রশিক্ষণ” অনুষ্ঠিত ঝালকাঠিতে জেলা পুলিশের একাধিক অভিযানে আটক-২ ইয়াবা ও গাজা উদ্ধার বাংলাদেশের গর্বের, স্বপ্নের পদ্মা সেতু উদ্বোধন হতে যাচ্ছে আগামী ২৫ জুন ২০২২ তারিখে টাঙ্গাইলের মধুপুরে আইন শৃঙ্খলা কমিটির আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত র‌্যাব -৭, চট্টগ্রামের অভিযানে কক্সবাজার জেলার উখিয়া থেকে ১ লাখ ৭০ হাজার পিস ইয়াবাসহ ০৩ জন ইয়াবা ব্যবসায়ী আটক। সাংবাদিক জাহাঙ্গীর আলমের মৃত্যুতে বিএমএসএফ’র গভীর শোক ও সমবেদনা দিগন্ত ফাউন্ডেশনের সভাপতি ও সম্পাদক পুনরায় বহাল ৬৯ নং মধ্য যৌতা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় বন্ধ দেখে হতাশ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা।
সাংবাদিকদের নিরাপত্তা ও অধিকার রক্ষায় সরকারকে এখনই ভাবা উচিত

সাংবাদিকদের নিরাপত্তা ও অধিকার রক্ষায় সরকারকে এখনই ভাবা উচিত

ফেডারেশন অব বাংলাদেশ জার্নালিস্ট অর্গানাইজেশন এফবিজেও চেয়ারম্যান এসএম মোরশেদ বলেছেন, সাংবাদিকদের নিরাপত্তা ও অধিকার রক্ষায় সরকারকে এখনই ভাবা উচিত। আর এই ভাবনার এখনই সময়। দেশ গঠনের পর থেকেই সাংবাদিকরা নির্যাতিত-নিষ্পেষিত হয়ে আসছে। এনিয়ে ধীরেধীরে পুঞ্জিভুত ক্ষোভের বহি:প্রকাশও ঘটতে শুরু করেছে। শাহবাগে অনশন কর্মসূচীর মধ্যদিয়ে সারাদেশের সাংবাদিকরা ঐক্যবদ্ধ হতে শুরু করেছে। তাই সাংবাদিকদের অধিকার এবং স্বাধীনতা পরবর্তী সকল সাংবাদিক হত্যার বিচারের এখনই সময়।
বুধবার ৫ সেপ্টেম্বর শাহবাগ চত্বরে ফেডারেশন অব বাংলাদেশ জানালিস্ট অর্গানাইজেশন এফবিজেও আয়োজিত মানববন্ধন ও সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
এ সময় বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম বিএমএসএফ কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক আহমেদ আবু জাফর তার বক্তব্যে বলেন, দেশে স্বাধীনতা পরবর্তী ৩৯জন সাংবাদিক পেশাগত কাজ করতে গিয়ে হত্যার শিকার হয়েছেন। সাংবাদিক হত্যার বিচারহীনতার সংস্কৃতি দেশে চলমান থাকায় এদেশের সাংবাদিকরা নিরাপত্তাহীনতার মাঝে কাজ করছে। এই বিচারহীনতার সংস্কৃতি থেকে দেশকে বেরিয়ে আসতে হবে। তাই স্বাধীনতা পরবর্তী সাংবাদিক হত্যাকান্ডের ৩/৪জন সাংবাদিক হত্যার নামমাত্র বিচার হলেও বাকি হত্যাকান্ডগুলোর বিচার কিংবা আদালতে চার্জশীট আজ পর্যন্ত দেয়া হয়নি। যেমন যশোরের দৈনিক রানার পত্রিকার সম্পাদক মুকুল রানা হত্যাকান্ড গত ৩০ আগস্ট ২০বছর পেরিয়ে গেলেও বিচার হয়নি। তেমনি বিএমএসএফ রংপুর জেলা কমিটির সদস্যসচিব মশিউর রহমান উৎসকে ২০১৬ সালের ২৩ ডিসেম্বর রাতে কর্মস্থল থেকে ফেরার পথে সন্ত্রাসীরা এলোপাথারি কুপিয়ে হত্যা করে। আজো চার্জশীট মেলেনি। তেমনি সাগর-রুনি হত্যাকান্ড। নতুন এই মিছিলে যোগ দিয়েছে নদী হত্যাকান্ড। অবিলম্বে এই সকল হত্যাকান্ডের মামলাগুলোকে দ্রুত বিচার আইনে বিচারিক আদালতে নিস্পত্তির জন্য সরকারের প্রতি দাবি জানাচ্ছি। এছাড়াও সারাদেশে বিভিন্ন সময় সাংবাদিকদেরকে হয়রাণী,নির্যাতন,মিথ্যা মামলায় ফাঁসানোর ঘটনাগুলোকে সরকার আমলে নিয়ে সরকার সাংবাদিকদের ন্যায়বিচার নিশ্চিত করে সাংবাদিক নির্যাতন বন্ধে যুগোপযোগি আইন প্রণয়ন করা হবে বলে বিএমএসএফ আশা করে।
সমাবেশে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, ফেডারেশনের স্থায়ী কমিটির সদস্য ও জাতীয় সাংবাদিক সংস্থার চেয়ারম্যান লায়ন নুরুল ইসলাম, বাংলাদেশ অনলাইন গণমাধ্যম এসোসিয়েশন চেয়ারম্যান কাজী ফারুক, বিএমএসএফ’র আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক হাবিব সরোয়ার আজাদ, দৈনিক মাতৃছায়া প্রকাশক এমএ মোতালেব, জুরাইন প্রেসক্লাব সভাপতি সোহেল রানা ,কবির নেওয়াজ রাজ ও কামাল হোসেন প্রমুখ।
সমাবেশে সারাদেশ থেকে আসা বিভিন্ন সাংবাদিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ অংশ নেন।

Print Friendly, PDF & Email

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

Comments are closed.




© All rights reserved © MKProtidin.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com