বুধবার, ০১ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ১১:৩৪ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম:
সরকারি খানবাহাদুর আহ্ছানউল্লা কলেজের ব্যবস্থাপনা বিভাগীয় প্রধানের বিদায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত” কালিগঞ্জ থানায় গ্রেফতারী পরোয়ানা ভূক্ত ০৮(আট) জন আসামী গ্রেফতার” নলতা হাসপাতালে ২ দিন ব্যাপি গাইনী ও প্রসূতি বিষয়ে ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প  ১ ফেব্রুয়ারি শেষ হবে” গলাচিপায় যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামি গ্রেফতার  সন্ত্রাস, অরাজকতা দমন ও শান্তি-শৃঙ্খলা রক্ষায় পুলিশ বাহীনি দায়িত্ব পালন করছে—-থানার ওসি মামুন রহমান শেখ হাসিনার সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন ৭ রাষ্ট্রদূত পাকিস্তানে আত্মঘাতী বোমা হামলায় নিহত বেড়ে ২৫ ঢাবি ও অধিভুক্ত কলেজের ১১৩ শিক্ষার্থী বহিষ্কার ঝিকরগাছায় বিদেশি মদ সহ মাদক ব্যবসায়ী আটক  ২৭ ফেব্রুয়ারি ঢাকায় চালু হচ্ছে আর্জেন্টিনা দূতাবাস
ছাপ্পা ও ভোট লুটের মধ্যে শুধু হয়েছে ১০৮,টি, পৌরসভার ভোট

ছাপ্পা ও ভোট লুটের মধ্যে শুধু হয়েছে ১০৮,টি, পৌরসভার ভোট

আজ পশ্চিম বাংলার বিভিন্ন যায়গায় বিরোধী দলের বহু এজেন্ট এবং কর্মীদের কে বুথ থেকে বের করে দিয়ে চলছে অবাধে ভোট লুট ও ছাপ্পা এই দৃশ্য দেখা গেছে বহু বুথে। পশ্চিম বাংলার কানলা ও টিটাগড় এবং দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা জেলার জয়নগর মন্জিলপুর মুর্শিদাবাদ জেলার বহু পৌরসভা এলাকায় দেখা গেছে। সেই সাথে দেখা গেছে পশ্চিম বাংলার পুলিশ প্রশাসন নীরব দর্শকের ভূমিকা পালন করছেন বলে অভিযোগ করেন বি জে পি ও বামফ্রন্ট এবং ভারতের জাতীয় কংগ্রেস ও এস ইউ সি আই সহ বিরোধী দলের নেতা ও কর্মীরা। বহু যায়গায় তৃনমূল দলের বাইক বাহিনীর সদস্যরা এসে বাইরে থেকে ভোটের লাইনের মধ্যে দাড়িয়ে প্রকৃত ভোটারদের কাছ থেকে ভোটার কার্ড কেড়ে নিয়ে শাসক দলের হয়ে ভোট দিয়ে বের হয়ে যাচ্ছে। কোথাও গনমাধ্যমের সামনে পড়ে ভূয়া ভোটার পালিয়ে যাচ্ছে। সেখানে প্রতিবাদ করতে গেলে পুলিশ অফিসাররা নির্বিকার হয়ে দাঁড়িয়ে আছে পাথর হয়ে। পশ্চিম বাংলার নির্বাচনে যে গনতন্ত্র লুট হচ্ছে তা আবার প্রমাণ পাওয়া গেছে পশ্চিম বাংলার পৌরসভার চেয়ারম্যান ও মেয়র পরিষদ নির্বাচনে। আজ সকালে ঝামেলা শুরু হয় দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা জেলার জয়নগর মন্জিলপুর পৌরসভা এলাকায় ওখানে বি জে পি নেতা ও কর্মীদের সাথে বচসায় জড়িয়ে পড়েন জয়নগর মন্জিলপুর থানার পুলিশ। এক সময় পুলিশ বি জে পি নেতা ও কর্মীদের লাঠিপেটা করে। তাতে বারুইপুর জেলা বি জে পি র দুই নেতা আহত হন। তাদেরকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অন্যদিকে উত্তর চব্বিশ পরগনা জেলার খড়দহ কানলা সহ বিভিন্ন স্থানে শাসক তৃনমূল দলের বিরুদ্ধে বিরোধীদের অভিযোগ আসছে শাসক তৃনমূল দলের নেতা ও কর্মীরা বহিরাগত নিয়ে পৌরসভার ভোট লুটপাট চালিয়ে যাচ্ছে। প্রশাসনিক কর্মকর্তারা ঠুটো জগন্নাথের ভূমিকা পালন করেছেন।।

Print Friendly, PDF & Email

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

Comments are closed.




© All rights reserved © MKProtidin.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com