রবিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৭:৩৭ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম:
কালিগঞ্জের পল্লীতে একই গ্রামে দুই বাড়িতে দুধর্ষ চুরি সংঘটিত যুদ্ধ বন্ধ করুন জাতিসংঘে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নড়াইলে ডিবি পুলিশের অভিযানে ১০ বোতল মদসহ যশোরের ২ মাদক কারবারি আটক গোপালপুরে নানা আয়োজনে মিনা দিবস পালিত সোনারগাঁয়ে দেশি মাছের আধুনিক পদ্ধতিতে চাষ করে লাভবান। শেরপুর নকলায় চলছে পুরাতন ব্যাটারী আগুনে জ্বালিয়ে সিসা তৈরীর কারখানা!  আমি জনকল্যাণকর কাজেই নির্বাচনী এলাকায় বাকী জীবনটা উৎসর্গ করতে চাই ,,,,,,সংসদ সদস্য আক্তারুজ্জামান বাবু বাংলাদেশে বিপুল মার্কিন বিনিয়োগ চাইলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পিরোজপুরে কিডনী রোগীর চিকিৎসায় ও মাদ্রাসা স্থাপনে আর্থিক সহায়তা প্রদান দূর্গা মায়ের আগমনী গান নিয়ে আসছেন শিল্পী বিশ্বাস
দশ মাসে ৩’শ ৭৪ টি মোবাইল ফোন ও ২ লক্ষাধিক টাকা উদ্ধার করেছে সাতক্ষীরা পুলিশের সাইবার ক্রাইম ইনভেস্টিগেশন সেল

দশ মাসে ৩’শ ৭৪ টি মোবাইল ফোন ও ২ লক্ষাধিক টাকা উদ্ধার করেছে সাতক্ষীরা পুলিশের সাইবার ক্রাইম ইনভেস্টিগেশন সেল

আরিফুল ইসলাম আশাঃ প্রথম হারানো মোবাইল খুঁজে মালিকের কাছে পৌছে দেওয়ার উদ্যোগ নেয় সাতক্ষীরা জেলা পুলিশ। যে উদ্যোগ দেখে ইতোমধ্যে দেশের বিভিন্ন জেলা পুলিশ এ কার্যকক্রম শুরু করেছে।
বুধবার (১৬ মার্চ) সকাল ১১ টায় সাতক্ষীরা পুলিশ লাইন্স ড্রিলসেটে জেলা পুলিশের সাইবার ক্রাইম ইনভেস্টিগেশন সেল কর্তৃক হারানো ৫৫টি মোবাইল উদ্ধার করে প্রকৃত মালিকদের নিকট হস্তান্তর কালে এসব কথা বলেন, সাতক্ষীরার পুলিশ সুপার(এসপি) মোস্তাফিজুর রহমান।
তিনি বলেন মানুষকে সতর্ক করতে জেলা পুলিশ এ উদ্যোগ নিয়েছে। আইন অনুযায়ী মোবাই ফোন উদ্ধার করতে গেলে তার মালিক কে মামলা করতে হবে। পুলিশ মোবাইল ফোন উদ্ধার করে মোবাইল ফোনটি কোর্টে প্রেরণ করবে। মালিক কোর্ট থেকে মোবাইল ফোনটি ফিরিয়ে নেবে। এই প্রকৃয়ার মাধ্যমে একটি ফোন ফিরে পেতে অনেক সময়ের লাগে। তাই সতর্কতার জন্য জেলা পুলিশ এমন উদ্যোগ নিয়েছে। সাইবার ক্রাইম ইনভেস্টিগেশন সেল মোবাইল ফোন উদ্ধারের পাশাপাশি বিকাশে প্রতারণার মাধ্যমে হাতিয়ে নেওয়া টাকা উদ্ধার, ফেসবুকে প্রতারণাসহ সাইবার ক্রাইম নিয়ে কাজ করছে।
তিনি বলেন, জেলা পুলিশ সার্বক্ষণিক আন্তরিক হয়ে জনগণকে সেবা প্রদান করে যাচ্ছে। মোবাইল উদ্ধারের পর কাগজপত্র যাচাই-বাছাই করে প্রকৃত মালিকদের নিকট হস্তান্তর করা হয়। মোবাইল মালিকরা হারিয়ে যাওয়া মোবাইল ফেরত পেয়ে খুশি। এতে জনগণের মাঝে পুলিশের প্রতি আস্থা দিন দিন বাড়ছে বলে মন্তব্য করেন তিনি।
অনষ্ঠিানে উদ্ধার হওয়া ৫৫টি মোবাইল ও ৫১ হাজার টাকা প্রকৃত মালিকদের নিকট হস্তান্তর করা হয়।
এ সময় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সজিব খান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ও সাইবার ক্রাইম ইনভেস্টিগেশন সেলের প্রধান ইকবাল হোসেন, জেলা পুলিশের বিশেষ শাখার কর্মকর্তা মিজানুর রহমানসহ মোবাইল মালিকরা উপস্থিত ছিলেন।
অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ও সাইবার ক্রাইম ইনভেস্টিগেশন সেলের প্রধান ইকবাল হোসেন জানান গত এপ্রিল মাস থেকে আমরা সাইবার ক্রাইম ইনভেস্টিগেশন সেলের কার্যক্রম শুরু করি। ইতোমধ্যে পুলিশ ডিপার্টমেন্ট থেকে আমরা অনেক সাড়া পেয়েছি। গত ১০ মাসে মোট ১ হাজার ৫৫ টি জিডির বিপরিতে ৩’শ ৭৪ টি মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়েছে। যার অনুমানিক মূল্য ১ কোটি টাকা। অনেক মোবাইল ফোন উদ্ধার চলমান রয়েছে। এছাড়া বিকাশের মাধ্যমে ভুল নাম্বারে চলে যাওয়া ২ লক্ষাধিক টাকা উদ্ধার করে প্রকৃত মালিকের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। ——–

Print Friendly, PDF & Email

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

Comments are closed.




© All rights reserved © MKProtidin.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com