শুক্রবার, ২৫ Jun ২০২১, ০২:২৭ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম:
DC হুমায়ুন কবীর মহোদয়কে আদর্শ ছাত্রবন্ধু ফাউন্ডেশনের অভিনন্দন।।মানুষের কল্যাণে প্রতিদিন রাজশাহী মহিলা কলেজের বিভিন্ন কাজ পরিদর্শনে মেয়র লিটন।।মানুষের কল্যাণে প্রতিদিন পিআইবির নবনিযুক্ত চেয়ারম্যানকে বিএমএসএফ’র অভিনন্দন।।মানুষের কল্যাণে প্রতিদিন কালিগঞ্জ ফ্রি অক্সিজেন সার্ভিস করোনা রোগীর সেবার পাশাপাশি মাক্স বিতরণে সাড়া ফেলেছে নড়াইলের সাদিয়ার তিনটি স্বর্ণপদক জয়ী।।মানুষের কল্যাণে প্রতিদিন আড়ানী মেয়রের ৭২ পাউন্ডের কেক কেটে ৭২তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী।।মানুষের কল্যাণে প্রতিদিন সাতক্ষীরার নতুন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হুমায়ুন কবীরের যোগদান গলাচিপায়  জমিজমা নিয়ে সংঘর্ষে আহত ৫।।মানুষের কল্যাণে প্রতিদিন সোনারগাঁওয়ে বাবুল হোসেন গ্রেফতার।।মানুষের কল্যাণে প্রতিদিন রাঙামাটি বরকল উপজেলা আহ্বায়ক কমিটির উদ্যোগে প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী।।মানুষের কল্যাণে প্রতিদিন 
চালু হচ্ছে দিল্লি-মুম্বই যাওয়ার সরাসরি উড়ান

চালু হচ্ছে দিল্লি-মুম্বই যাওয়ার সরাসরি উড়ান

ছ’টি শহর থেকে কলকাতার সরাসরি উড়ান এই মুহূর্তে বন্ধ। অর্থাৎ, এই শহরগুলি থেকে কেউ সরাসরি কলকাতায় আসতে পারছেন না। কিন্তু কলকাতা থেকে ওই সব শহরে যাওয়ার ক্ষেত্রে কোনও নিষেধাজ্ঞা ছিল না। এ বার কলকাতা থেকে ধীরে ধীরে শুরু হচ্ছে দিল্লি, মুম্বইয়ের একপিঠের উড়ান।

সোমবার ইন্ডিগো কলকাতা থেকে দিল্লি রুটে উড়ান চালিয়েছে বলে কলকাতা বিমানবন্দর সূত্রে জানা গিয়েছে। এ বার তারা পরপর দিল্লি এবং মুম্বই রুটে কয়েকটি উড়ান চালাবে। সবগুলিই একপিঠের। ট্র্যাভেল এজেন্টদের তরফে জানানো হয়েছে, গো এয়ার এবং ভিস্তারাও কলকাতা থেকে একপিঠের উড়ান চালু করছে।

রাজ্যের মতে, দিল্লি, মুম্বই, চেন্নাই, আমদাবাদ, নাগপুর ও পুণে— এই ছ’টি শহর থেকে যাত্রীরা শহরে এলে কলকাতা তথা রাজ্যে করোনার প্রকোপ বাড়বে। যদিও নিয়মিত ভাবে দিল্লি, মুম্বই থেকে অন্য শহর ঘুরে কলকাতায় আসছেন যাত্রীরা। গত ৬ জুলাই থেকে রাজ্যের অনুরোধে এই ছ’টি শহর থেকে উড়ান আসা বন্ধ করে দিয়েছে বিমান মন্ত্রক। তার পরে তিন দফায় সেই নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ বাড়ানো হয়েছে। আপাতত ৩১ অগস্ট পর্যন্ত তা বহাল রয়েছে।

নিষেধাজ্ঞা শুধু কলকাতায় আসার ক্ষেত্রে হলেও প্রথম থেকে দু’দিকের উড়ানই বন্ধ করে দিয়েছিল সংস্থাগুলি। তাদের যুক্তি ছিল, যাতায়াতের উড়ান নিয়েই সূচি তৈরি হয়। এ ভাবে সারা দেশের সূচি ভেঙে একপিঠের উড়ান চালানো আর্থিক ভাবে লাভজনক নয়।

ফলে কলকাতা থেকে দিল্লি ও মুম্বইগামী যাত্রীরাও আটকে পড়েন। তাঁদেরও অন্য শহর ঘুরে যাতায়াত করতে হচ্ছিল। এমন যাত্রীর সংখ্যা বাড়ার পরে এবং কলকাতা থেকে দিল্লি, মুম্বই রুটে সরাসরি যাওয়ার চাহিদাও বৃদ্ধি পাওয়ায় একপিঠের উড়ান চালানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে কয়েকটি সংস্থা।

সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা

Print Friendly, PDF & Email

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

Comments are closed.




© All rights reserved © MKProtidin.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com